অবৈধ ভবন নিয়ে রাজউকের নতুন সুপারিশ

ঢাকা নগরীর গড়ে উঠার ইতিহাস অনেক পুরানো। ধীরে ধীরে উন্নয়নের পথ ধরে চলার সাথে গড়ে উঠেছে অনেক দালান। সঠিক নিয়ম কানুন মেনে গড়ে উঠার জন্য রাজউক কাজ করে চলছে। কিন্তু এদের সবগুলো সেই নিয়ম মেনে নির্মিত নয়। এক্ষেত্রে সেই ভবন অপসারণ করার আদেশ রয়েছে। কিন্তু এই নিয়ম বহির্ভূত দালেন সংখ্যা অনেক বেশী হবার জন্য জরিমানা দিয়ে ভবন পুনরায় নিয়ম মেনে নির্মান করার সুপারিশ করা হচ্ছে। বিশদ পরিকল্পনা (DAP) এর আওতায় এই প্রস্তাব আসে। যেখানে নিয়ম ভঙ্গের মাত্রা বিবেচনা করে জরিমানা আরোপ করা ও এরপর প্রয়োজনীয় কাঠামোগত পরিবর্তন করে বৈধতা আনা যাবে। এক্ষেত্রে নির্মান ব্যত্যয় কে প্রাধান্য দেয়া হয়েছে এবং ভবনগুলোকে তিনটি ভাগে ভাগ করা হবে।

কিন্তু সরকারি জমি, নাগরিকের সুবিধার জন্য নির্ধারিত স্থান ও জলাশয় ভরাট করে বানানো দালানকে এই সুবিধার আওতায় আনা হবে না। এমনকি সিভিল এভিয়েশনের উচ্চতা সীমা নির্দিষ্ট জায়গায় যেভেবে দেয়া রয়েছে তা মেনে না বানানো দালানকেও বৈধতা দেয়া হবে না। রাজউকের এই প্রস্তাবনা সঠিক ভাবে বাস্তবায়িত হলে তা নগরকে রূপ দিতে অনেক গুরুত্বপূর্র্ণ ভূমিকা রাখবে। কিন্তু পূর্ববর্তী অভিজ্ঞতা অনুযায়ী অনেক ক্ষেত্রেই নিয়ম ফাঁকি দিয়ে গড়ে উঠেছে দালান।ভবিষ্যতে এই সুপারিশ শক্ত হাতে বাস্তবায়িত করা একটি চ্যালেঞ্জ। যেহেতু সেই দালান গুলোকেই আবার ঠিক করার প্রক্রিয়ায় এই নতুন সুপারিশ, পুনরায় কর্তৃপক্ষকে ফাঁকি দিয়ে এই ভবন গুলো থেকে গেলে সুপারিশের মূল উদ্দেশ্য পূরণ হবে না। 

অবৈধ ভবন বৈধ করতে রাজউকে জরিমানার সুপারিশ

 

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *